Home Blog Page 2

আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচন ২০২১: জয়ের স্বপ্ন দেখছেন কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ শিপন হায়দার

মোঃ আলমগির উসমান ভুঁইয়া, আখাউড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, টপ টাইমস ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ
রাত পোহালেই আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হবে। চতুর্থ ধাপে ১৪ ফেব্রুয়ারি ইভিএম পদ্ধতিতে আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। একাধিক তথ্যসূত্রে জানা গেছে সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনে জয়ের স্বপ্ন দেখছেন ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মোঃ শিপন হায়দার। ইতিমধ্যে তিনি শেষ দিনের প্রচার প্রচারনা শেষ করেছেন।

৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মোঃ শিপন হায়দার পানির বোতল প্রতীকে লড়ছেন। তিনি আখাউড়া পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। এলাকায় তার ব্যাপক সমর্থন ও জনপ্রিয়তা রয়েছে। গত কয়েকদিনের নির্বাচনী প্রচারনায় সরজমিনে ঘুরে দেখা গেছে ওয়ার্ডের সবগুলো নির্বাচনী প্রচারনায় প্রচুর গনসমাবেশ গঠেছে। নারী পুরুষ সবাই স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে গণসংযোগে অংশগ্রহন করেছে।

মোঃ শিপন হায়দার এর একান্ত ব্যক্তিগত মুখপাত্র ও ছোট ভাই মোঃ সাগর হোসেন বলেন, আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা দিয়ে আমরা সব জায়গায় প্রচারণা চালিয়েছি। জনগনের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহন ছিল চোখে পড়ার মতো। কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না হলে আমরা বিজয় নিয়ে আসব ইনশাআল্লাহ্‌।

তিনি আরও বলেন “হিংসা পরিহার করি; ভালোবাসার মাধ্যমে মানুষের মন জয় করি”। আসন্ন আখাউড়া পৌরসভার নির্বাচনে কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মোঃ শিপন হায়দার ভাই এর পানির বোতল প্রতীকের পোস্টার আখাউড়া ৫ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে লাগানো হয়েছে। তারমধ্যে মালদারপাড়ার পোস্টার গুলো কে বা কারা ছিড়ে এলোপাথাড়ি ভাবে ম্যানহোল ড্রেন এর ভিতরে ফেলে রেখেছে। আমরা এই কাজের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

আসন্ন আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে ৫নং ওয়ার্ড হইতে কাউন্সিলর পদপ্রার্থী, জনবন্ধু, তারুণ্যের অহংকার, যুব সমাজের বলিষ্ঠ কন্ঠস্বর, জনাব শিপন হায়দার ভাইয়ের রাধানগর, মালদার পাড়া, লাল বাজার ও বড় বাজারের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে বিশাল শোডাউনের মাধ্যমে শেষ দিনের প্রচার প্রচারনা সম্পন্ন হয়েছে। আগামীকাল মাঠে জনগন আমাদের পাশে থাকবে এবং পানির বোতল প্রতীকের ভোট দিয়ে আখাউড়া পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের জনগনের সেবা করার সুযোগ দিবেন এই প্রত্যাশাই করছি।

কাউন্সিলর প্রার্থী শিপন হায়দার বলেন জনগন আমাকে মূল্যায়ণ করেছে। জয়ী হলে দলের সবস্তরের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে কাজ করব এবং এলাকার উন্নয়ন সাধন করবো ইনশাআল্লাহ্‌।

এদিকে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে ফের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে লড়ছেন বর্তমান মেয়র মো. তাকজিল খলিফা কাজল। এর আগেও আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে টানা দুইবার আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মো. তাকজিল খলিফা কাজল। আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের ঘনিষ্টভাজন হিসেবে পরিচিত মেয়র কাজল।

জাগরণ-(একটি সামাজিক সংগঠন)এর আত্বপ্রকাশ ও সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

0

-জায়েদুর রহমান

গত ৩০শে জানুয়ারী ২০২১ইং ব্রাহ্মণবাড়ীয়া সদর  উপজেলাস্থ কোড্ডা গ্রামে  জাগরন-এর আত্বপ্রকাশ ও সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান রেজভীর সঞ্চালনায় ও স্বাগত বক্তব্যর মাধ্যমে সূচীত অরাজনৈতিক, অসাম্প্রদায়িক ও অলাভজনক সামাজিক কল্যাণ সাধনের মহতি লক্ষ্য নিয়ে প্রতিষ্ঠিত জাগরণ-এর আত্বপ্রকাশ ও সাধারণ সভা অনুষ্ঠানে সংগঠনের আহবায়ক ইঞ্জিঃ মোঃ আফজালুর রহমান সভাপতিত্ব করেন ।

স্বাগত বক্তব্যে সময়মত উপস্থিতির জন্য সমবেত  সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান রেজভী বলেন, ”জাগরন” সম্পূর্ণরূপে একটি অরাজনৈতিক, অসাম্প্রদায়ীক ও অলাভজনক স্বেচ্ছাসেবী একটি সংগঠন। অত্র সংগঠনের সাধারণ সদস্যভূক্ত পরিবারের সদস্যদের এবং উপকারভোগী জনগোষ্ঠির নৈতিক, পারস্পরিক, সামাজিক, সম্প্রীতি, মানবিক শান্তি-শৃংখলা ও অর্থনৈতিক সক্ষমতা তৈরীর শুভ  মহতি প্রয়াসে সহযোগীতা করার জন্য সমবেত সকলের নিকট অনুরোধ জানান।    

সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে ইন্জিনিয়ার মোহাম্মদ আফজালুর রহমানকে সভাপতি, মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান রেজভীকে সাধারণ সম্পাক এবং প্রফেসর মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেনকে অর্থ সম্পাদক করে মোট ১৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি ঘোষনা করা হয়।

ইঞ্জিঃ মোঃ আফজালুর রহমান সকলের উদ্দ্যেশ্যে জাগরণের মহান গঠনতন্ত্র উপস্থাপনসহ   শুভেচ্ছা বক্তব্যে  বলেন, আমরা আমাদের অভিভাবকগনের ভবিষ্যত প্রজন্ম হিসেবে তাহাদের ঐতিহ্য,ঐক্যতা ,সাম্যতা,ন্যায্যতা,মানবতা ও নৈতিক জীবনাদর্শ সমূহ গ্রহন, রক্ষণ, প্রতিপালন ও বাস্তবায়ন এবং আমাদের শিক্ষা,সম্প্রীতি ও কল্যাণ নিশ্চিত করণে অবিচল ও অঙ্গীকারবদ্ধ। উপস্থিত সকলের সহযোগীতা কামনা করে তিনি বলেন এই সংগঠন একদিন তার প্রাথমিক লক্ষ্যভুক্ত এলাকা পেরিয়ে সমগ্র জেলা এমনকি সমগ্র বাংলাদেশে উন্নয়ন কাজ সম্প্রসারণ করবে ইনশাল্লাহ্।

শুভেচ্ছা বক্তেব্যে  সংগঠনের আহবায়ক কমিটির সিনিয়র সদস্য প্রভাষক মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন বলেন, ”জাগরন ” এমন একটি সামাজিক সংগঠন যার দ্বারা সমাজের অবহেলিত বা পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠির  সার্বিক উন্নয়নসহ পারষ্পারিক হিংসা-নিন্দা পরিহার, ধুমপান ও মাদক প্রতিরোধ   এবং মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে বলে এই সংগঠনটি একটি সময়োপযোগী পদক্ষেপ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আখাউড়া শহীদ স্মৃতি ডিগ্রী কলেজরে সাবেক ভিপি ও  বীর মুক্তিযোদ্ধা  মোঃ জামসেদুর রহমান সমাজ কল্যাণ মূলক সংগঠন ”জাগরন” সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সংগঠকদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, যারা এই সংগঠনটি প্রতিষ্ঠায় ধাপে ধাপে অগ্রসর করে আজ আমাদের মাঝে এই সুন্দর অনুষ্ঠান উপহার দিলেন  সত্যিই নিঃসন্দেহে তাঁরা ধন্যবাদ পাওয়ার একটি নজির সৃষ্টি করলেন। এটি একটি যোগোপযোগী কল্যাণমূলক সংগঠন । সকল ধরনের সহযোগীতার আশ্বাস দিয়ে জাগরণ নামক সংগঠনটি আরো বহূদুর এগিয়ে যাক এই প্রত্যাশাই তিনি করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মোহাম্মদ বরকত উল্লাহ তৌহিদ ( ইউপি মেম্বার) বলেন  উদ্যোক্তাগন আমাদের মাঝে এমন কাঠামোগত শক্তিশালী একটি সংগঠন উপহার দিবে বলে আগে ভাবতেও পারিনি। ”জাগরন” সংগঠনের চিন্তাবিদ বা সংগঠক অধ্যক্ষ ইঞ্জিঃ মোঃ আফজালুর রহমান ,  মানবাধিকার ‍ও উন্নয়ন সংস্থা এআরডি’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান উপদেষ্টা মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান রেজভী এবং প্রভাষক মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেনকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, এত সুন্দর ও মহৎ উদ্দেশ্যে গঠিত ”জাগরন” সংগঠনটিকে ব্যক্তিগভাবে নানান ধরনের সহযোগীতা করবেন বলে তিনি আশ্যস্তসহ উপস্থিত সকলের সু-স্বাস্থ্য, পারষ্পারিক আন্তরিকতা ও সম্প্রীতি  কামনা করে  বক্তব্য শেষ করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মোঃ ফয়সাল শাহ্, মোঃ আবদুল গফুর বাদল, মোঃ হুমায়ূন মিয়া, মোঃ সোহানুর রহমান সোহান, মোঃ রিদয় মিয়া ও মোঃ রাজু মিয়া প্রমুখ। সভায় ইঞ্জিঃ মোঃ আফজালুর রহমানকে সভাপতি, মানবাধিকার ও উন্নয়ন কর্মী মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান রেজভীকে সাধারণ সম্পাদক ও প্রভাষক মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেনকে অর্থ সম্পাদক করে সর্ব সম্মতিক্রমে মোট ১৫ সদস্য বিশিষ্ট ৩ বছর মেয়াদী একটি কাযকরী পরিষদ গঠন করা হয়।

আখাউড়ায় ৪৫টি গৃহহীন পরিবারের হাতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের দলিল

আখাউড়ায় ভূমিহীন ও গৃহহীন ৪৫টি পরিবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে নতুন ঘর পেলেন। আজ প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে এ কার্যক্রম উদ্ভোধন করেন। পরে উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের চরনারায়নপুরের ৪৫ টি ঘরের দলিল সহ ঘর বুঝিয়ে দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এ বি এম আজাদ, এনডিসি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুল রহমান, জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ভূঁইয়া, পৌরসভা মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নূর-এ আলম , আখাউড়া থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রসুল আহমেদ নিজামী সহ আখাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সরকারী কর্মকর্তা এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস সাংবাদিকবৃন্দ।

বিজয়নগরে ঘর পেল ১শ পরিবার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে বিভিন্ন গ্রামে মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে ১০০টি দৃষ্টিনন্দন ঘর। প্রতিটি ঘরে রয়েছে ২টি কক্ষ, ১টি রান্নাঘর ও ১টি টয়লেট এবং সামনের দিকে টানা বারান্দা। ২০২০ সালের শেষ দিকে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী টাস্কফোর্স কমিটির মাধ্যমে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে সেমিপাকা ঘরগুলোর নির্মাণ কাজ শুরু হয়।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সেস মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিজয়নগর উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন ১০০টি পরিবারের মধ্যে মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে ঘরগুলো প্রদান করা হয়। একই সময় সারাদেশে ৬৬ হাজার ১৮৯ ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে দুই শতক করে জমি এবং একটি সেমিপাকা ঘর মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধামন্ত্রীর ভার্চুয়ালী উদ্বোধনী অনুষ্ঠান জাঁকঝমকপূর্ণ ভাবে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা চত্ত্বরে প্রদর্শন করা হয়। এসময় উপজেলা চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাই আলী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে এম ইয়াসির আরাফাত, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাহবুবুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিত্রী রানী, থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতিকুর রহমান, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা শাহিনুর জাহান,উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মাসুম, ডা: শাহনেওয়াজ, সহ বিভিন্ন দপ্তরের প্রধানগণ,মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক ও বিভিন্ন পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

পরে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আল মামুনের পরিচালনায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান নাসিমা মুকাই আলি,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে,এম,ইয়াসির আরাফাত,মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দিন,যুবলীগ সভাপতি রফিক মাস্টার,প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মো,জিয়াদুল হক বাবু, ঘর গ্রহিতা সিংগারবিল ইউনিয়নের তানজিনা আক্তার, বুধন্তি ইউনিয়নের কুতুব উদ্দিন প্রমুখ। উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে এম ইয়াসির আরাফাত জানান, বিজয়নগর উপজেলায় নির্মিত হয়েছে ১০০টি সেমিপাকা ঘর। মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি এবং গৃহ প্রদান প্রকল্পের আওতায় জেলা পর্যায়ে ডিসি এবং উপজেলা পর্যায়ে ইউএনওকে আহ্বায়ক করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এসব গৃহনির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করেছে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানরা বলেন , রঙ্গিণ টিনের ছাউনি ও অফ-হোয়াইট রঙের দেয়ালের সমন্বয়ে ঘরগুলো দৃষ্টিনন্দন ও মনোমুগ্ধকর হয়েছে। ঘর পাওয়ার সুবিধাভোগীর তালিকায় ঘর গ্রহিতা ছতরপুর গ্রামের শাহআলম, সিংগারবিল গ্রামের বাহার উদ্দিন, ভিটিদাউদপুর গ্রামের সিরাজ মিয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের ঘর দিছে আমরা এতদিন পরের বাড়িতে থাকছিবেহন থেকে নিজের ঘরে থাকুম । বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার জন্য ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারের পক্ষ থেকে প্রাণভরে দোয়া করি, মহান আল্লাহ তায়ালা যেন থাকে সুস্থ রাখেন এবং ভালো রাখেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে এম ইয়াসির আরাফাত বলেন, ব্রাহ্মণবািড়য়া -৩ আসনের মানীয়ন সংসদ সদস্য র আ উবায়দুল মোক্তাদির চৌধুরী এমপি এবং উপজেলা পরিষদের সার্বিক সহযোগিতা ও পরামর্শে স্বচ্ছতা এবং সততার সঙ্গে শতভাগ মান বজায় রেখে গৃহনির্মাণ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে।ইতিমধ্যে উপজেলার ১০০টি ঘরের মধ্যে ৭৫ ভাগ ঘরের কাজ শেষ হয়েছে কয়েকদিনের মধ্যে শতভাগ ঘরগুলোর কাজ সম্পন্ন হবে।

উল্লেখ্য, পুরো উপজেলায় সরকার দুই ক্যাটাগরিতে ১ হাজার ১৪৬টি পরিবারের তালিকা তৈরি করেছে। এর মধ্যে ভূমিহীন ও গৃহহীন ৫শ ১৮টি পরিবার এবং জমি আছে কিন্তু ঘর নেই এমন রয়েছে ৬শ ২৮টি পরিবার। যাদের সবাইকে পর্যায়ক্রমে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে সেমিপাকা ঘর উপহার হিসেবে প্রধান করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া বস্ত্র প্রকৌশলী কল্যাণ সমিতির আত্মপ্রকাশ

0

মোঃ মুনিরুজ্জামান মুনির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, একুশ আমার ডট কম:
গত ২২ শে জানুয়ারি ২১ইং ঢাকার উত্তরাস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারদের নিয়ে “ব্রাহ্মণবাড়িয়া বস্ত্র প্রকৌশলী কল্যাণ সমিতি” নামে একটু সমাজ কল্যাণ মূলক সংগঠন আত্মপ্রকাশ করে। সভার সর্ব সম্মতিক্রমে ইঞ্জি. মোঃ আদিল সরকারকে আহ্বায়ক এবং ইঞ্জিঃ এম.এ. আউয়াল মামুনকে সদস্য সচিব করে সাত সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সমিতির অন্যান্য সদস্যরা হলেন যুগ্ম আহ্বায়ক ২ জন ইঞ্জি. মোঃ আমির হামজা ও ইঞ্জি. ইশতিয়াক আহমেদ, অন্যান্য সদস্য হলেন ইঞ্জি.মোঃ জুনায়েদ নাহিদ,ইঞ্জি.মোঃ সাব্বির সরকার, ইঞ্জি. শাহ্ আহসান জামিল।

উক্ত সমিতিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সকল টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার এবং টেক্সটাইল সেক্টরে অধ্যায়নরত সকলকে সংযুক্ত হওয়ার জন্য বিশেষভাবে আহ্বান করা হয়।

শিল্প-সাহিত্যের আমাদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া পরিণত হোক আরও অগ্রণী জনপদে

0

সম্পাদকীয় বানী।
শুরুতেই সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন !!
শিল্প-সংস্কৃতি, শিক্ষা-সাহিত্যে দেশের অন্যতম অগ্রণী জনপদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া। যা ১৯৮৪ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারী জেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। এটি বাংলাদেশের ১৭ তম বৃহত্তম শহর। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শিল্প সংস্কৃতির ধারক ও বাহক এবং দলমত নির্বিশেষে ধর্মীয় ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল মিলন মেলা হিসেবে এ দেশের মানচিত্রে বিশেষ মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত।

সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ, ওস্তাদ আয়েত আলী খাঁ, ব্যারিস্টার এ রসুল, নবাব স্যার সৈয়দ শামসুল হুদা, কথা সাহিত্যিক অদ্বৈত মল্ল বর্মণ, কবি আবদুল কাদির, শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তসহ বহু জ্ঞানী গুনীর জন্মধন্য জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়া। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা জাতীয় অর্থনীতিতেও ব্যাপক অবদান রাখছে। তিতাস গ্যাস ফিল্ড, সালদা গ্যাস ফিল্ড, মেঘনা গ্যাস ফিল্ড দেশের এক-তৃতীয়াংশ গ্যাস সরবরাহ যোগায়। আশুগঞ্জ তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র দেশের ২য় বৃহত্তম বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র। আশুগঞ্জ সার কারখানা দেশের ইউরিয়া সারের অন্যতম বৃহত্তম শিল্প কারখানা।

মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ও খেলাধুলায় এই জেলার অনেকেই দেশের হয়ে অবদান রেখে যাচ্ছেন। এছাড়া বর্তমানে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, র,আ,ম উবায়দুল মোক্তাদির চৌধুরীসহ জেলার অনেক প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ জেলা ও দেশের রাজনীতিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরসহ জেলার সকল উপজেলায় মাস্ক পরিধান ব্যতিত বাহিরে ঘোরা-ফেরা করা, দোকানে মূল্য তালিকা প্রদর্শন ব‍্যতীত ও মেয়াদোত্তীর্ণ দ্রব‍্যাদি বিক্রয়, লাইসেন্সবিহীন যানবাহন চালানো প্রভৃতি নানবিধ অপরাধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে পরিচালনা করা এবং আইন শৃঙ্খলা উন্নয়নে জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন, পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ আনিসুর রহমানসহ সকলে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন।

শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি আবদুল মোনেম সাহেবকে, যিনি কিছুদিন আগে আমাদের মাঝে থেকে চলে গেছেন। বাংলাদেশের বড় বড় অবকাঠামো তৈরিতে যে প্রতিষ্ঠানটির নাম জড়িয়ে, সেই মোনেম গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুল মোনেম ৩১ মে মারা যান। ৮৬ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ীর ব্রেইন স্ট্রোক হয়েছিল। বাংলাদেশে ছোট থেকে শুরু করে বড় ব্যবসায়ী ব্যক্তির ক্ষেত্রে মোনেম বড় উদাহরণ হিসেবে বিবেচিত। নির্মাণ খাতের ব্যবসার সাফল্য তাকে বড় উচ্চতায় নিয়ে যায়।

জাতীয় প্রেসক্লাব পরিচালনা কমিটির নতুন সভাপতি হয়েছেন ফরিদা ইয়াসমিন। তিনি প্রেসক্লাবের ইতিহাসে প্রথম নারী সভাপতি। নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে বিজয়ী হয়েছেন ইলিয়াস খান। নতুন নির্বাচিত সকলকে জানাচ্ছি শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের নতুন নির্বাচিত সভাপতি ”রিয়াজ উদ্দিন জামি” ও সাধারন সম্পাদক ”জাবেদ রহিম বিজন” ভাইসহ অন্যান্য সদস্যদের জন্য রইলো আন্তরিক শুভেচ্ছা।

নদী-মাতৃক বাংলাদেশের মধ্য- পূর্বাঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী তিতাস-বিধৌত জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়া। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নামকরণ নিয়ে একাধিক মত রয়েছে। শোনা যায়, সেন বংশের রাজত্বকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অভিজাত ব্রাহ্মণকুলের অভাবে পূজা-অর্চনায় বিঘ্ন সৃষ্টি হতো। এ কারণে রাজা লক্ষণ সেন আদিসুর কন্যকুঞ্জ থেকে কয়েকটি ব্রাহ্মণ পরিবারকে এ অঞ্চলে নিয়ে আসেন। তাদের মধ্যে কিছু ব্রাহ্মণ পরিবার শহরের মৌলভী পাড়ায় বাড়ী তৈরী করে। সেই ব্রাহ্মণদের বাড়ীর অবস্থানের কারণে এ জেলার নামকরণ ব্রাহ্মণবাড়িয়া হয় বলে অনেকে বিশ্বাস করেন।

অন্য একটি মতানুসারে দিল্লী থেকে আগত ইসলাম ধর্ম প্রচারক শাহ সুফী হযরত কাজী মাহমুদ শাহ এ শহর থেকে উল্লেখিত ব্রাহ্মণ পরিবার সমূহকে বেরিয়ে যাবার নির্দেশ প্রদান করেন , যা থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া নামের উৎপত্তি হয়েছে বলে মনে করা হয়।পূর্ব ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সীমান্ত সংলগ্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১৮৬০ ইং সালে মহকুমা প্রতিষ্ঠিত হয়। শুরুতে ত্রিপুরা জেলার অর্ন্তভূক্ত ছিল। ভারত বিভাগের পর কুমিল্লা জেলার একটি মহকুমা হিসেবে থাকে। ১৯৮৪ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারী জেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে।

নতুন বছরে আমাদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া হয়ে উঠুক আরও উজ্জ্বল। শিল্প-সাহিত্যের আমাদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া পরিণত হোক আরও অগ্রণী জনপদে। এখানকার সাধারন মানুষ, সাংবাদিক, শিল্পী, কলাকুশলীসহ সকল পেশাজীবী মানুষ থাকুক শান্তিতে ও কল্যাণে।

২০২১ সালে নতুন বছরের প্রথম দিনে প্রকাশিত আমাদের নতুন পত্রিকা ”টপ টাইমস্ ব্রাহ্মণবাড়িয়া” আপনাদের সকলের কল্যাণে কাজ করবে এই প্রত্যাশায় যাত্রা শুরু। আপনারা সবাই আমাদের পরিবারের পাশেই থাকবেন এই প্রত্যাশাই করছি।

মহামারি করোনাভাইরাস নামে একটা ব্যাধি এসে মানুষকে শিক্ষা দিয়ে যায় অনেক কিছু। ভয়, শিহরণ, আতঙ্ক থেকে মনখারাপের শোক দুঃখ বিচ্ছেদের ভয়ে ঘাবড়ে যাওয়ার বয়াবহ করোনার দৃশ্য। আর মহামারী করোনার কারনে আবার কিছু ক মানুষ অনেক ভালো পথে হেটে আল্লাহর রাস্তা পেয়েছে। ২০২১ একুশ সালের প্রথম দিন প্রথম শুক্রবার পেয়েছি, আলহামদুলিল্লাহ্‌।

সবার নতুন দিনের আলো ফিরে আসুক। নতুন বছরে মহান আল্লাহতায়ালা মহামারি করোনাভাইরাস সহ সকল কুষ্ট রোগ ব্যাধি ও বিপদ-আপদ থেকে আমাদের রক্ষা করুক। আমিন।।
সবশেষে আবারো সবাইকে ২০২১ ইংরেজী নতুন বছরের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।।

মোঃ সাইফুল আলম
সম্পাদক ও প্রকাশক
টপ টাইমস্ ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ঐক্যবদ্ধ থেকে জামায়াত ও বিএনপিকে বিতাড়িত করতে হবে

0

নিজেদের ঐক্যবদ্ধ রেখে জামায়াত-বিএনপিকে এদেশ থেকে বিতাড়িত করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে গণতন্ত্র বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্স যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন আইনমন্ত্রী। তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে আরও বলেন, আর না হলে আপনাদের বিতাড়িত করবে। তাদের কে এই সুযোগে দেবেন না।’

কসবা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক এম জি হাক্কানীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কসবা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রাশেদুল কাউসার ভূঁইয়া জীবন,কসবা পৌর মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল, প্রেসক্লাব সভাপতি হারুন রশিদ ঢালী প্রমুখ।

লন্ডন থেকে আসা সব ফ্লাইট বন্ধের সুপারিশ

0

সংসদীয় কমিটি নতুন ধরনের করোনা ভাইরাস যুক্তরাজ্যে ছড়িয়ে পড়ায় লন্ডন থেকে আসা সব ফ্লাইট বন্ধের সুপারিশ করেছে। আর ফ্লাইট বন্ধ না করা পর্যন্ত লন্ডন থেকে দেশে ফেরা যাত্রীদের ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন পালনেরও সুপারিশ করা হয়। বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সপ্তম বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

জানা গেছে, এসব ভাইরাসের কারণে জার্মানি, ইতালি, বেলজিয়াম, আয়ারল্যান্ড, তুরস্ক এবং কানাডাসহ বিশ্বের অন্তত ৪০টি দেশ এ পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বিমান চলাচল সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে। ভারতও যুক্তরাজ্য থেকে আসা বিমানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

এদিকে বৈঠকে উপস্থিত সংসদের গণসংযোগ শাখার সহকারী পরিচালক মো. জয়নাল আবেদীন জানান, অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট থেকে বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস আনবে। আর কোভ্যাক্সের আওতায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে চার কোটি নব্বই লাখ ডোজ টিকা পাওয়া যাবে বলে কমিটিকে জানায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শুরু ১৮ জানুয়ারি

0

একাদশ জাতীয় সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শুরু হচ্ছে আগামী ১৮ জানুয়ারি। আজ বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ সংবিধানের ৭২(১) অনুচ্ছেদের প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ অধিবেশনের আহ্বান জানিয়েছেন।

জানা গেছে, আগামী ১৮ জানুয়ারি মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে দিনের কার্যসূচি শুরু হবে।

৬৪ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ঘোষণা

0

দেশের ৬৪ পৌরসভার নির্বাচনে দলীয় মেয়র প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। আগামী ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় তৃতীয় ধাপের এসব পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন তারা।

শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে এসব প্রার্থীর মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বৈঠকে মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফর উল্লাহ, লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ।

বৈঠক শেষে রাতে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ূয়া স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দলীয় মেয়র প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

যারা মনোননয়ন পেলেন:

পৌরসভার মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন দিনাজপুরের হাকিমপুরে এনএএম জামিল হোসেন চলন্ত, নীলফামারীর জলঢাকায় মো. মোহসীন, কুড়িগ্রামের উলিপুরে মামুন সরকার, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে খন্দকার মো. জাহাঙ্গীর আলম, বগুড়ার ধুনটে টিআইএম নুরুন্নবী, শিবগঞ্জে তৌহিদুর রহমান মানিক, গাবতলীতে মোমিনুল হক (শিলু), কাহালুতে হেলাল উদ্দিন কবিরাজ ও নন্দীগ্রামে আনিছুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুরে গোলাম রাব্বানী বিশ্বাস, নওগাঁর ধামইরহাটে আমিনুর রহমান, নওগাঁ পৌরসভায় নির্মল কৃষ্ণ সাহা, রাজশাহীর মুন্ডুমালায় আমির হোসেন (আমিন) ও কেশরহাটে শহিদুজ্জামান, নাটোরের সিংড়ায় জান্নাতুল ফেরদৌস, পাবনা পৌরসভায় আলী মুর্তজা বিশ্বাস, চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় মতিয়ার রহমান, ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে ফারুক হোসেন ও কোটচাঁদপুরে শাহাজান আলী, যশোরের মনিরামপুরে কাজী মাহমুদুল হাসান, নড়াইল পৌরসভায় আঞ্জুমান আরা ও কালিয়ায় ওয়াহিদুজ্জামান (হীরা), বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে এসএম মনিরুল হক, খুলনার পাইকগাছায় সেলিম জাহাঙ্গীর, সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মনিরুজ্জামান, বরগুনা পৌরসভায় কামরুল আহসান (মহারাজ) ও পাথরঘাটায় আনোয়ার হোসেন আকন, ভোলার বোরহানউদ্দিনে রফিকুল ইসলাম ও দৌলতখানে জাকির হোসেন, বরিশালের গৌরনদীতে হারিছুর রহমান ও মেহেন্দিগঞ্জে কামাল উদ্দিন খান, ঝালকাঠির নলছিটিতে আ. ওয়াহেদ খাঁন, পিরোজপুরের স্বরূপকাঠীতে গোলাম কবির, টাঙ্গাইল পৌরসভায় এসএম সিরাজুল হক, মির্জাপুরে সালমা আক্তার, ভূঞাপুরে মাসুদুল হক মাসুদ, সখিপুরে আবু হানিফ আজাদ ও মধুপুরে সিদ্দিক হোসেন খান, কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে শওকত উসমান, মুন্সিগঞ্জ পৌরসভায় মোহাম্মদ ফয়সাল, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শেখ তোজাম্মেল হক টুটুল, রাজবাড়ীর পাংশায় ওয়াজেদ আলী, শরীয়তপুরের নড়িয়া আবুল কালাম আজাদ, ভেদরগঞ্জে আবদুল মান্নান হাওলাদার, জাজিরায় অধ্যাপক আবদুল হক কবিরাজ, জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে মনির উদ্দিন, শেরপুরের নকলায় হাফিজুর রহমান ও নালিতাবাড়ীতে আবু বক্কর সিদ্দিক, ময়মনসিংহয়ের ভালুকায় একেএম মেজবাহ্‌ উদ্দিন, ত্রিশালে নবী নেওয়াজ সরকার, গৌরীপুরে শফিকুল ইসলাম হবি ও ঈশ্বরগঞ্জে হাবিবুর রহমান, নেত্রকোনার দূর্গাপুরে আলা উদ্দিন, সিলেটের গোলাপগঞ্জে মোহাম্মদ রুহেল আহমদ ও জকিগঞ্জে খলিল উদ্দিন, মৌলভীবাজার পৌরসভায় ফজলুর রহমান, কুমিল্লার লাকসামে আবুল খায়ের, বরুড়ায় বক্তার হোসেন ও চৌদ্দগ্রামে মীর হোসেন মীরু, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে আসম মাহবুব-উল আলম, ফেনী পৌরসভায় নজরুল ইসলাম স্বপন, নোয়াখালীর চৌমুহনীতে আক্তার হোসেন ও হাতিয়ায় কেএম ওবায়েদ উল্লাহ এবং লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে আবুল খায়ের পাটওয়ারী।